কক্সবাজার, শুক্রবার, ২০ মে ২০২২

শিরোনাম

অবৈধ করাতকল উচ্ছেদসহ পৃথক অভিযানে ২৬০ ঘনফুট বিবিধ কাঠ জব্দ


প্রকাশের সময় :২৫ জানুয়ারি, ২০২২ ১:১৫ : পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

কক্সবাজার উত্তর বনবিভাগের অভিযানে পিএমখালীতে অবৈধ করাতকল উচ্ছেদ করা হয়েছে পৃথক অভিযানে ২৬০ ঘনফুট বিবিধ কাঠসহ পরিবহনকালে নিয়োজিত মিনি পিক-আপ জব্দ করা হয়েছে।

বনবিভাগ সূত্রে জানা যায়, ২৪ জানুয়ারি ( সোমবার) সহকারী কমিশনার ( ভূমি) সদরের সার্বিক সহযোগিতায় কক্সবাজার উত্তর বনবিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মোঃ আনোয়ার হোসেন সরকারের নির্দেশে সহকারী বনসংরক্ষক ( সদর) ড. প্রান্তোষ চন্দ্র রায়ের নেতৃত্বে স্পেশাল টিমের ওসি একেএম আতা এলাহী এবং একদল বনকর্মীদের সহযোগিতায় অভিযান চালিয়ে পিএমখালী রেঞ্জের তেতৈয়া এলাকায় অবৈধভাবে স্থাপিত করাতকল উচ্ছেদ করা হয়েছে। এসময় অবৈধ করাতকলের বিভিন্ন সরঞ্জামাদি জব্দ করে পিএমখালী রেঞ্জ হেফাজতে নিয়ে আসা হয়েছে।

বনবিভাগসূত্রে আরো জানা যায়, নিয়মিত অভিযানের অংশ হিসেবে স্পেশাল টিমের ওসি একেএম আতা এলাহীর নেতৃত্বে পৃথক অভিযান চালিয়ে চট্টগ্রাম কক্সবাজার মহাসড়কে ঈদগাঁও মুখী একটি মিনি পিক-আপ অবৈধ চিরাই কাঠ পাচারকালে ধাওয়া করে অবৈধ চিরাই কাঠ বোঝাই মিনি পিক-আপ জব্দ করা হয়েছে। এসময় ১৩০ ঘনফুট চিরাইকাঠ জব্দ করা হয়।

অপর অভিযানে, স্পেশাল টিম রাত্রিকালীন টহলের সময় চকরিয়া উপজেলার ইসলাম নগর এলাকা থেকে অবৈধভাবে বিভিন্নজাতের গোল কাঠ পাচারকালে ১৩০ ঘনফুট বিবিধ গোল কাঠ জব্দ করা হয়েছে। এসময় পরিবহনকালে নিয়োজিত মিনি পিক-আপ আটক করা হয়। কাঠ বোঝাই মিনি পিক-আপ ২ টি ফাঁসিয়াখালী রেঞ্জ হেফাজতে নিয়ে আসা হয়েছে।

স্পেশাল টিমের ওসি ও শহর রেঞ্জ কর্মকর্তা একেএম আতা এলাহী বলেন,কক্সবাজার উত্তর বনবিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তার নির্দেশে পিএমখালীতে অবৈধ করাতকল উচ্ছেদ করা হয়েছে। স্পেশাল টিম পৃথক অভিযান পরিচালনা করে ২৬০ ঘনফুট চিরাই কাঠ ও বিবিধ গোল কাঠ জব্দ করে এবং পরিবহনকালে নিয়োজিত মিনি পিক-আপ আটক করে রেঞ্জ হেফাজতে নিয়ে আসা হয়েছে। কাঠ পাচাররোধে উর্দ্ধতন বনকর্মকর্তাদের নির্দেশে প্রাত্যহিক অভিযান অব্যাহত থাকবে।

কক্সবাজার উত্তর বনবিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মোঃ আনোয়ার হোসেন সরকার বলেন, বনবিভাগ বনভূমি জবরদখল, অবৈধ কাঠ পাচার এবং পাহাড় কাটার বিরুদ্ধে সজাগ ও সতর্ক রয়েছেন। নিয়মিত অভিযানের অংশ হিসেবে সহকারী কমিশনার ভূমি সদরের সার্বিক সহযোগিতায় বনবিভাগ এবং সদর উপজেলা প্রশাসনের যৌথ অভিযানে পিএমখালীতে অবৈধ করাতকল উচ্ছেদ করা হয়েছে। আবার স্পেশাল টিম বিশেষ পৃথক অভিযান পরিচালনা করে প্রায় ২৬০ ঘনফুট চিরাই কাঠ ও বিবিধ গোল কাঠ জব্দ করে। সংশ্লিষ্ট আসামী এবং জড়িতদের বিরুদ্ধে বন আইনে পৃথক পৃথক মামলা দায়ের করা হবে।সরকারি সম্পদ রক্ষার্থে বন অপরাধ দমনে তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করার আহ্বান জানান তিনি।

ট্যাগ :