কক্সবাজার, শুক্রবার, ২০ মে ২০২২

শিরোনাম

পেকুয়ায় ইয়াবা পাচারকারীকে ধরিয়ে দিল চালক


প্রকাশের সময় :২০ জানুয়ারি, ২০২২ ১২:৪৪ : পূর্বাহ্ণ

ইসমতআরা আফ্রিদি জুই

কক্সবাজারের পেকুয়া উপজেলা সদরের চৌমুহনী স্টেশন থেকে চট্টগ্রাম শহরে যাবার জন্য একটি সিএনজি অটোরিক্সা ভাড়া করেন ইয়াসিন আরফাত (২৫)। আটশত টাকা ভাড়ার চুক্তিতে রওয়ানা করেন চালক আমির হোসেন (৩০)।

আঞ্চলিক মহাসড়ক (আনোয়ারা-বাঁশখালী) হয়ে যাওয়ার পথে টইটং সীমান্ত ব্রীজে পুলিশের তল্লাশি দেখে আঁতকে ওঠেন যাত্রী ইয়াসিন আরফাত। মুহুর্তেই গাড়ি ঘুরিয়ে দিয়ে ফেরত আসতে বাধ্য করেন চালককে। এতে চালক আমির হোসেনের মনে সন্দেহের উদ্রেক হয়। চলন্ত অবস্থায় কৌশলে ফোন দেন পেকুয়া থানায়। দুটি স্টেশন পেরিয়ে এসে যাত্রী ইয়াসিন আরফাতকে তাঁর অগোচরে তুলে দেন পুলিশের হাতে।

গতকাল বুধবার উপজেলার টইটং ইউনিয়নের হাজী বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। যাত্রীবেশি পাচারকারী ইয়াসিন আরফাতের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয় দেড় হাজার পিছ ইয়াবা। ইয়াসিন আরফাত টেকনাফ উপজেলার হ্নীলা ইউনিয়নের শামসুল আলমের ছেলে।

পেকুয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) কানন সরকার বলেন, চালক আমির হোসেনের বিচক্ষণতায় মাদক পাচারকারী ইয়াসিন আরফাতকে আটক করা সম্ভব হয়েছে। তাঁর কাছ থেকে দেড় হাজার পিছ ইয়াবা উদ্ধারের ঘটনায় সংশ্লিষ্ট আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। পেকুয়া-চট্টগ্রাম সড়কে চলাচল করা গাড়ির চালকগণ আমির হোসেনের মতো এগিয়ে এলে পাচারকারীরা আরো বেশি ধরা পড়বে।

ট্যাগ :