কক্সবাজার, শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১

শিরোনাম

লেদা রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ডি ব্লকের এনায়েত উল্লাহকে অযথা মারধরের অভিযোগ


প্রকাশের সময় :২০ মে, ২০২১ ৯:২৩ : পূর্বাহ্ণ

টেকনাফ প্রতিনিধি

লেদা ক্যাম্পে ডি ব্লকের দীল মোহাম্মদের পুত্র এনায়েত উল্লাহ(২৪) কে অযথা মারধরের অভিযোগ উঠেছে। ঘটনাটি ১৭ মে রাতে ঘটেছে। জানা যায়, এনায়েত উল্লাহ পার্শ্ববর্তী এফ ব্লকে রাতে কেরাম খেলতে যায়। সেখানে সে টাইগার হারাহারি নিয়ে বাজি ধরে কেরাম খেলতে খেলতে খেলার এ পর্য্যায়ে প্রতিপক্ষকে হারিয়ে সে জিতে যায়। সেটা প্রতিপক্ষ সহ্য করতে না পেরে এফ ব্লকের হাবিব উল্লাহর পুত্র কামাল হোসেনের নের্তৃত্বে হামলা চালিয়ে আহত করলে সে কোন প্রতিবাদ না করে মার খেয়ে বাড়ীতে চলে যায়। পরে শোনা যায় যারা তাকে মেরেছে তারা উল্টো চেয়ারম্যানকে আগে গিয়ে তাদেরকে মারধর করেছে বলে বিচার দেয়। চেয়ারম্যান উভয়কে বিচারের জন্য ডাকলে গতকাল সকালে তিনি বিচারে যাওয়ার সময় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ই ব্লকের আলম শাহ’র পুত্র আমির হোসন, এফ ব্লকের হাবিউল্লার পুত্র কামাল হোসন (আমির হোসনের আপন ভাগিনা), শাহ আলম পিতা অজ্ঞাত, ডি ব্লকের ইউসুফের স্ত্রী হাবিয়া খাতুন ও ই ব্লকের আমির হোসনের স্ত্রী জোবায়দা খাতুনের নের্তৃত্বে চেয়ারম্যানের সামনে তারা তাকে মেরে রক্তাক্ত করে। পরে তাকে আত্মীয় স্বজন ও স্থানীয়রা উদ্ধার করে আইওএম হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখান থেকে টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠানো হয়। সেখানেও অবস্থার অবনতি হলে তাকে টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে কক্সবাজার রেফার করা হয় বলে জানা যায়।

এ ব্যাপারে হামলায় আহত হওয়া অভিযোগকারী নিরীহ ব্যক্তি এনায়েত উল্লাহ বলেন, আমি প্রশাসনের কাছে হামলাকারীদের সুষ্ঠু বিচার দাবী করছি। তারা অযথা আমার ওপরে হামলা চালিয়েছে। লেদা ক্যাম্পের চেয়ারম্যান মো আলম বলেন, শুনলাম সামান্য বিষয়ে কথা কাটাকাটি হয়েছে। সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করতেছেন বলে তিনি জানায়।

ট্যাগ :