কক্সবাজার, শুক্রবার, ৪ ডিসেম্বর ২০২০

পরিবর্তনের প্রতিশ্রুতি নিয়ে যুবলীগে প্রভাবশালীরা


প্রকাশের সময় :১৯ নভেম্বর, ২০২০ ৯:০০ : অপরাহ্ণ

আপন ডেস্কঃ 

ক্যাসিনোকাণ্ডে সংকটে থাকা আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠন যুবলীগের ভাবমূর্তি ফেরাতে শনিবার (২৩ নভেম্বর, ২০১৯) যুবলীগের সপ্তম জাতীয় কংগ্রেসে দ্বিতীয় পর্ব বেলা ৩টায় শুরু হয় ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে। সেখানেই সংগঠনের ভবিষ্যত নেতৃত্ব নির্বাচন করা হয়। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের নতুন সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের নাম ঘোষণা করেন। সংগঠনটির নতুন চেয়ারম্যান হন শেখ ফজলে শামস পরশ আর সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন মাঈনুল হোসেন খান নিখিল।

যুবলীগের ভাবমূর্তি ফেরাতে পরশ-নিখিলের ওপর বড় ধরনের দায়িত্ব অর্পিত হয়। শেখ ফজলে শামস পরশ রাজনীতিতে সক্রিয় না থাকলেও তিনি সংগঠনটির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান শেখ ফজলুল হক মনির বড় ছেলে। আর নিখিল ছিলেন ঢাকা মহানগর উত্তর যুবলীগের সভাপতি।

সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকের নাম ঘোষণার এক বছর পর শনিবার (১৪ নভেম্বর) পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হয়।

এই কমিটিতে জায়গা পেয়েছেন কয়েকজন সংসদ সদস্য, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা, বিভিন্ন জেলা থেকে ওঠে আসা নতুন মুখ, সিসি কমিটির সদস্য ও সাবেক কমিটির বেশ কয়েকজন। কমিটিতে জায়গা পেয়েছেন কয়েকজন সাংবাদিকও।

নতুন কমিটিতে বাদ পড়েছেন যুবলীগের গত কমিটির বিতর্কিত নেতারা। পাশাপাশি বয়স ৫৫ বছরের বেশি হওয়ায় বাদ পড়েছেন ৭০ জনের বেশি।

তবে এই কমিটিতে বেশকিছু আলোচিত মুখ রয়েছেন। যাদের কারণে বর্তমান যুবলীগ যেকোন বারের চেয়ে সুন্দর হবে বলে আশা সবার। যুবলীগ কমিটির উজ্জ্বল নক্ষত্র, শেখ ফজলে শামস পরশ, নিক্সন চৌধুরী (এমপি), শেখ সোহেল, ব্যারিস্টার শেখ নাইম, শেখ ফজলে ফাহিম (এফবিসিসিআই সভাপতি) এবং অর্থনীতিবীদ ডঃ আশিকুর রহমান।

শেখ ফজলে শামস পরশ:

তিনি যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান শেখ ফজলুল হক মনির বড় ছেলে। আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিমের ভাতিজা। তিনিও যুবলীগের চেয়ার‌ম্যান ছিলেন। পরশের ভাই শেখ ফজলে নূর তাপস ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র। ক্যাসিনোকাণ্ডে বিদায় নেয়া যুবলীগ চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরী হলেন পরশের ফুপা।

মজিবুর রহমান চৌধুরী নিক্সন (এমপি):

বাবার নাম ইলিয়াস আহমেদ চৌধুরী। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের একজন রাজনীতিবিদ, গণপরিষদের প্রাক্তন সদস্য ও সাবেক সাংসদ। তিনি ১৯৭০ সালের নির্বাচনে পূর্ব পাকিস্তান প্রাদেশিক পরিষদের সদস্য নির্বাচিত হন। এর পর ১৯৭৩ সালের প্রথম জাতীয় সংসদে ফরিদপুর-১৩ (বিলুপ্ত) আসন থেকে ও ১৯৯১ সালের পঞ্চম জাতীয় সংসদে মাদারীপুর-১ আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। তার দাদী ফাতেমা বেগম শেখ মুজিবুর রহমানের বড় বোন। নিক্সন চৌধুরী বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে সক্রিয় ভাবে যুক্ত থাকলেও ২০১৪ সালের দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসাবে ফরিদপুর-৪ আসন থেকে প্রথমবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। ২০১৮ সালে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনেও তিনি ফরিদপুর-৪ আসন থেকে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসাবে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন।

শেখ সোহেল:

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছোট ভাই শেখ আবু নাসেরের ছেলে শেখ সোহেল। যিনি দীর্ঘদিন যাবৎ বিসিবির পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

ব্যারিস্টার শেখ নাইম:

শেখ ফজলুল করিম সেলিমের ছোট ছেলে তিনি। শিক্ষা, ক্রীড়া, বিভিন্ন সামাজিক, রাজনৈতিক ও সেবা মূলক কাজের সাথে নিজেকে জড়িত রেখেছেন ব্যারিস্টার শেখ নাইম।

শেখ ফজলে ফাহিম:

তিনি পেশায় একজন ব্যবসায়িক। দ্য ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি বা এফবিসিসিআই-এর সভাপতি তিনি। ফাহিম বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিমের ছেলে। তিনি সেন্ট এডওয়ার্ডস বিশ্ববিদ্যালয় থেকে রাজনৈতিক অর্থনীতিতে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন এবং স্নাতক প্রোগ্রামের অংশ হিসাবে তিনি হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে যোগ দেন।

অর্থনীতিবীদ ডঃ আশিকুর রহমান:

তিনি দেশের খ্যাতনামা গবেষণা প্রতিষ্ঠান পলিসি রিসার্চ ইনস্টিটিউটের (পিআরআই) জ্যেষ্ঠ অর্থনীতিবিদ। অর্থনীতিবিদ ড. আশিকুর রহমানের গ্রামের বাড়ি ভোলা জেলায়। পড়াশোনা করেছেন বিদেশের একাধিক খ্যাতনামা প্রতিষ্ঠানে। রাজনৈতিক অর্থনীতিতে তিনি পড়াশোনা করেন বিশ্বের খ্যাতনামা লন্ডন স্কুল অব ইকোনমিক্সে। কর্মজীবনে বিশ্বব্যাংক, জাইকা সহ দেশি বিদেশি অনেক খ্যাতনামা সংস্থায় পরামর্শক হিসেবে কাজ করেছেন। পাশাপাশি রাজনীতি ও অর্থনীতির ওপর তার রয়েছে উল্লেখযোগ্য গবেষণাকর্ম। বাবা প্রাক্তন এলজিআইডি মন্ত্রী ও ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের সফল মেয়র মরহুম নাজিউর রহমান মঞ্জু

ট্যাগ :

যুবলীগ