কক্সবাজার, শুক্রবার, ৪ ডিসেম্বর ২০২০

একনেকে সাড়ে ৭ হাজার কোটি টাকার পাঁচ প্রকল্প অনুমোদন


প্রকাশের সময় :১৭ নভেম্বর, ২০২০ ১১:৫৬ : অপরাহ্ণ

জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি (একনেক) ৭ হাজার ৫০৫ কোটি ২৯ লাখ টাকা ব্যয়ে ৫টি প্রকল্প অনুমোদন দিয়েছে।

মঙ্গলবার (১৭ নভেম্বর) প্রধানমন্ত্রী এবং একনেক চেয়ারপারসন শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এনইসি সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত সভায় এসব প্রকল্পের অনুমোদন দেন। সভা শেষে পরিকল্পনা সচিব আসাদুল ইসলাম সাংবাদিকদের প্রকল্পগুলো সম্পর্কে বিস্তারিত জানান।

পরিকল্পনা সচিব জানান, আজকের প্রকল্পগুলোর মধ্যে সরকারি অর্থায়ন ৭ হাজার ৪২৬ কোটি ৬১ লাখ টাকা, সংস্থার নিজস্ব অর্থায়ন ৭৮ কোটি ৬৮ লাখ টাকা ব্যয় করা হবে।

অনুমোদিত প্রকল্পগুলোর একটি হলো পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের ‘যমুনা নদীর ডানতীরের ভাঙন থেকে গাইবান্ধা জেলার ফুলছড়ি উপজেলাধীন কাতলামারী ও সাঘাটা উপজেলাধীন গোবিন্দি এবং হলদিয়া এলাকা রক্ষা’ প্রকল্প। এছাড়া স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের ৪টি প্রকল্প রয়েছে।  সেগুলো হলো-  ‘গুরুত্বপূর্ণ পল্লী অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্প: বরিশাল, ঝালকাঠি ও পিরোজপুর জেলা (১ম সংশোধিত)’ প্রকল্প; ‘ঘূর্ণিঝড় আম্পান ও বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত পল্লী সড়ক অবকাঠামো পুনর্বাসন’ প্রকল্প; ‘খুলনা সিটি করপোরেশন বর্জ্য ব্যবস্থার উন্নয়ন’ প্রকল্প এবং ‘শেখ হাসিনা সাংস্কৃতিক পল্লী নির্মাণ (১ম সংশোধিত)’ প্রকল্প।

প্রকল্পগুলোর মধ‌্যে ‘ঘূর্ণিঝড় আম্পান ও বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত পল্লী সড়ক অবকাঠামো পুনর্বাসন’ প্রকল্পটিতে ব্যয় ধরা হয়েছে ৫ হাজার ৯০৫ কোটি ৫৯ লাখ টাকা। যা পুরোপুরি সরকারি অর্থায়নেই ব্যয় করা হবে। প্রকল্পের বাস্তবায়ন সময় ধরা হয়েছে অক্টোবর ২০২০ থেকে ডিসেম্বর ২০২৩ পর্যন্ত।

কৃষিমন্ত্রী মো. আব্দুর রাজ্জাক, স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম, শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি, শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন, স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক; বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ. ম. রেজাউল করিম, পরিবেশ, বন ও জলবায়ুপরিবর্তন বিষয়ক মন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন এবং পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক সভার কার্যক্রমে অংশ নেন।

সভায় মন্ত্রিপরিষদ সচিব, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব, এসডিজি বিষয়ক মুখ্য সমন্বয়ক, পরিকল্পনা কমিশনের সদস্য, সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সচিব এবং ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

ট্যাগ :